প্রাণী প্রেমের নামে আমাদের হত্যা করা হয়েছে - মলি (২০১৭ - ১১ জুন, ২০২০) এবং হুলো

ছবি
গত মে মাসের শেষের দিক থেকে কি মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে আমাকে যেতে হয়েছে, এবং এখনও হচ্ছে। আশা করছি আমি আর কি পদক্ষেপ নিতে পারি তা জানিয়ে আমাকে সাহায্য করবেন। আমার দুটি পোষা বেড়ালের মধ্যে হুলো এবং অপরটির নাম ছিলো মলি। হঠাৎ করে আমি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ায়, আমার পক্ষে ওদের লালন-পালন কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। এই অবস্থায় আমি কুকুর-বিড়াল লালন-পালনকারী বিভিন্ন গ্রুপে আমার বেড়াল দুটোকে নিয়ে সাহায্য করার ব্যাপারে ফেইসবুকে পোস্ট দিতে থাকি (এপ্রিল ২, ২০২০ তারিখ থেকে)। এই ব্যাপারে আমি “কেয়ার ফর পজ”, ডাক্তার সিয়ামাক, ডাক্তার লুতফুর এবং বিভিন্ন বন্ধু বান্ধবদের সাহায্য প্রার্থনা করি। এক মাসেরও বেশী সময় কারো সহায়তা না পেয়ে আমি অবশেষে এক জোড়া স্বর্ণের কানের দুল দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ফেইসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে পুনরায় পোস্ট দেয়া শুরু করলাম (২৩ মে, ২০২০ তারিখে)। আমি বেশী অসুস্থ হয়ে পড়ছিলাম, এবং বেড়াল দুটি ও অসুস্থ হয়ে পড়বে এই আশঙ্কা করছিলাম। স্বর্ণের কানের দুলের কথা এবং একটি বেদেশি বেড়াল এর ছবি দেখে আমার পোস্টটি অনেকের নজরে আসে। একটি গ্রুপে আমার পোস্টটি দেখে অথৈ নামের একটি মেয়ে তাদের নেয়ার ব্যাপারে আগ্

নির্ভয়ার প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি (A Tribute to Nirbhaya - India's daughter)

নির্ভয়া  (Nirbhya) একটি ভারতীয় শব্দ যার অর্থ নির্ভীক কিংবা সাহসী। এই শব্দটি প্রয়োগ করা হয় ভয়কে জয় করা কোনো সাহসী নারীর উপর। এই শব্দটি জনপ্রিয়তা লাভ করে ২০১২ সালে দিল্লিতে সংঘটিত হওয়া গনধর্ষণ ঘটনায় একজন তরুণীর সকরুণ মৃত্যুকে কেন্দ্র করে। মেয়েটিকে এই উপাধিতে ভূষিত করা হয় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করা পর্যন্ত তার সাহসী সংগ্রামের জন্য। 

A Tribute to Nirbhaya - India's Daughter

ভারতীয় আইন মোতাবেক কোনো ধর্ষণ কবলিত মহিলার প্রকৃত নাম কোনো সংবাদ মাধ্যমের কাছে প্রাথমিক ভাবে প্রকাশ করা আইন বিরোধী  কর্ম।এই কারণে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম বিভিন্ন ছদ্ম নামে মেয়েটিকে উল্লেখ করে খবর প্রচারিত করেছে।উল্লেখযোগ্য প্রকাশিত নামগুলি হচ্ছে ---১.জাগ্রতি(সতর্কতা), ২.জয়তি(অগ্নিশিখা),ডেমিনি(বজ্রাঘাত) এবং দিল্লির সাহসীহৃদয়।

Fifty shades of abuse

প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য যে, ২০১২ সালে দক্ষিন দিল্লিতে সংঘটিত হয় এক মারাত্মক গণধর্ষণের ঘটনা। কথিত সালের ১৬ই ডিসেম্বর ২৩ বৎসর বয়সী একজন ফিজিওথেরাপিস্ট ইন্টার্ন তরুণী চলছিল একটি ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে চড়ে। সাথে ছিল তার বন্ধু। সময় সন্ধ্যা সমাগত। একে একে নেমে যায় বাসের সব যাত্রীরা।থাকে শুধু দুজন। উল্লেখিত তরুণী আর তার বন্ধুটি।বাসটি এসে দাঁড়ায় একটি নির্জন এলাকায়। দুজন যাত্রী ছাড়া বাসটিতে আর ছিল ড্রাইভার, হেলপার সহ ছজন পরিবহন কর্মী।

নির্জনতাকে পুঁজি করে অকস্মাৎ ছজন পরিবহন কর্মী একযোগে ঝাঁপিয়ে পড়ে তরুণীটির দেহতটে।মেরে কাবু করে দূরে ছুড়ে মারে বন্ধুটিকে। তারপর ছজন নরপশু গনহারে তরুণীটির উপর চালায় পাশবিক যৌন নির্যাতন। ক্ষত বিক্ষত হতে নির্যাতিতার সমস্ত অঙ্গ প্রত্যঙ্গ।বহু পরে পুলিশ এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় নির্যাতিতাকে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। মৃত্যু তখন তার দূয়ারে কড়া নাড়তে শুরু করেছে।মৃত্যুর সাথে যন্ত্রণাময় পান্জা নড়তে নড়তে কেটে যায় এগারোটা দিন।অবশেষে উন্নততর চিকিৎসার জন্য তাকে স্থানান্তরিত করা হয় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে। সেখানে ও লাভ হলোনা কিছু। ডাক্তারদের সকল প্রচেষ্টাকে ব্যার্থ করে দিয়ে নির্যাতিতার সকল যন্ত্রণার মুক্তি মিলল মিলল মৃত্যুর মধ্য দিয়ে।
ঘটনাটা বিশালাকারে ছড়িয়ে পড়লো ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন পত্র পত্রিকায়।প্রবল ভাবে উঠলো সমালোচনা আর নিন্দার ঝড়। পরিশেষে দিল্লির প্রতিবাদী জনতা সোচ্চার হলো কেন্দ্রীয় সরকারের নারীর যথাযোগ্য নিরাপত্তা দানের ব্যার্থতার বিরুদ্ধে। প্রতিবাদীদের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী। এমন প্রতিবাদ আর সংঘাত ক্রমাগত ছড়িয়ে পড়ে আরো অনেক নগরীতে,শহরে।

যেহেতু ভারতীয় আইননুসারে ধর্ষণ ভিকটিমের নাম প্রকাশ বেআইনি তাই ধর্ষণের শিকার এই মর্মস্পর্শী নারীটি পরিচিত হলো নির্ভয়া নামে। এবং সেই সাথে প্রতিকী হয়ে রইল ধর্ষণের বিরুদ্ধে নারীদের নির্ভীক সংগ্রামের।

মন্তব্যসমূহ

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

😍😍 পিক্সেলেন্ট ফটোগ্রাফি লকডাউন কন্টেস্ট 😍😍

স্মার্ট ফোনে ছবি তোলার জন্যে সবচেয়ে ভাল অ্যাপ । The Best Photo Apps for Your Smartphone

প্রাণী প্রেমের নামে আমাদের হত্যা করা হয়েছে - মলি (২০১৭ - ১১ জুন, ২০২০) এবং হুলো